Categories
এলাকার সমস্যা

সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার প্লান্ট এ আগুন !

গত ২৩ জানুয়ারী শুক্রবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জে ৩৩৫ মেগাওয়াট এর কম্বাইন্ড পাওয়ার প্লান্ট নির্মান স্থাপনায় আগুন লেগে কর্মরত স্প্যানিশ কোম্পানীর ২ তলা বিশিষ্ট অফিস ভবন পুরে যায় । ডেপুটি এসিস্টেন্ট ডিরেক্টর মাসুদুর রহমান আকন বলেন, ছয় টি আগুন নির্বাপক ইউনিট প্রায় দেড় ঘন্টা যাবত অক্লান্ত পরিশ্রম করে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয় ।fire+logo
কোন সাংবাদিক কেই কম্পাউন্ডের ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হয় নি ।
প্রথম তলাতে রাখা সকল ধরনের ফাইল পত্র এবং অন্যান্য বস্তু পুড়ে ভস্ম হয়ে গেছে ।
কিন্তু এতে বড় ধরনের কোন ক্ষতি হয় নি বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কেননা গুরুত্তপুর্ন ডাটা এবং অন্যান্য তথ্যাদি কম্পিউটারে সংরক্ষিত আছে । একটা শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত বলে মনে করছেন প্রজেক্ট ডিরেক্টর নাজমুল আলম । নারায়ানগঞ্জ-আদমজি ইপিজেড রোড প্রায় দেড় ঘন্টা যাবত বন্ধ ছিলো এই ঘটনার সময়ে । তখন তীব্র যানযট এর সৃষ্টি হয় । প্রজেক্ট ডিরেক্টর এর ভাষ্যমতে এই পাওয়ার প্লান্ট এই বছরের এপ্রিল মাস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করবে । ৩২ জন স্প্যানিশ, ৪ জন আর্জেন্টাইন এবং ২ জন ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ার এখানে কাজ শুরু করেছিলেন ।

Categories
এলাকার সমস্যা

সানারপাড় নিমাইকাশারী এলাকায় প্যাকেজিং কারখানায় আগুন মেশিনসহ কমপক্ষে ৪’কোটি টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতি

সোমবার রাত সাড়ে ১২’টায়

কারখানা চলাকালিন সময়ে বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের ২’টি ইউনিট প্রায় সাড়ে ৩’ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। কারকানাটি যমুনা ব্যাংক ধুলাইখাল শাখার কাছে ১’কোটি টাকায় দায়বদ্ধ বলে জানা গেছে। কারখানার পি.এম মোঃ এয়াকুব আলী জানান, কারখানাটি সোমবার রাত ১০’টা পর্যন্ত চালু ছিল।

ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন মাষ্টার মোঃ সোহেল রানা জানায় পানির সু-ব্যাবস্থা না থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রন করতে দেরী হওয়ায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান বেশী হয়েছে। কারখানা মালিক আবদুর রহিম জানান, এ অগ্নিকান্ডে কমপক্ষে সাড়ে ৩’থেকে ৪’কোটি টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তাছাড়া যমুনা ব্যাংক ধুলাইখাল শাখা থেকে ১’কোটি টাকা লোন নিয়ে কারখানাটি চালানো হচ্ছিল।

কারখানায় ৭০’জন লোক কর্মরত। আগুনে যে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে, তাতে কারখানাটি আবার চালু করতে অনেকদিন সময় লাগবে। আগুনের খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে যমুনা ব্যাংকের কর্মকর্তারা ক্ষতিগ্রস্থকারখানাটি পরিদর্শন করেছেন বলে তিনি জানান।

 

খবর পেয়ে ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের ২’টি ইউনিট ঘটনাস’লে ছুটে এসে কমপক্ষে সাড়ে ৩’ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসার আগেই কারখানার ৩’টি সেক্টরের ১৭’টি মেশিনসহ সমস্ত মালামাল পুরে যায়। কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের মাঝে দেখা দিয়েছে হতাশা। ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন মাষ্টার মোঃ সোহেল রানা জানায়, ঘটনাস্থলে পানির সুব্যাবস্থা না থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রন করতে বিলম্ব হয়েছে। আশপাশের বাসাবাড়ীর ট্যাংকি থেকে পানির ব্যাবস্থা করে কারখানার বিভিন্ন দিক দিয়ে দেয়াল ভেঙ্গে পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন আনতে হয়েছে।

 

Categories
অভিযোগ এলাকার সমস্যা সামাজিক অবস্থা

সিদ্ধিরগঞ্জ এক্সচেঞ্জের সকল টেলিফোন বিকল

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এক্সচেঞ্জের সকল টেলিফোন (১ হাজার ২৭০টি) দুই দিন ধরে বিকল হয়ে পড়েছে। এতে সরকারি-বেসরকারি অফিসসহ সকল গ্রাহক টেলিফোনে যোগাযোগ করতে পারছে না।

 

map_4
বুধবার বেলা ৩টা পর্যন্ত বিকল টেলিফোন সচল হয়নি।

 

সূত্র জানায়, গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিটিসিএল’র আওতাধীন সিদ্ধিরগঞ্জ এক্সচেঞ্জের সকল টেলিফোন বিকল হয়ে পড়ে। ফলে সিদ্ধিরগঞ্জে অবস্থিত আদমজী ইপিডেজ, র‌্যাব-১১ এর সদর দপ্তর, নারায়ণগঞ্জ সাইলো, পদ্মা ও মেঘনা ডিপো ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা কার্যালয়, সরকারি-বেসরকারি অফিসসহ সকল গ্রাহক টেলিফোনে যোগাযোগ করতে পারছে না। এতে তারা ভোগান্তিতে পড়েছে।

 

এক্সচেঞ্জ সূত্রে জানা যায়, অত্র এক্সচেঞ্জের আওতায় চার হাজার টেলিফোন সংযোগ দেয়ার ক্ষমতা থাকলেও বর্তমানে ১ হাজার ২৭০টি টেলিফোন সংযোগ রয়েছে। বুধবার দুপুরে টেলিফোন এক্সচেঞ্জে গিয়ে কোন প্রকৌশলীকে মেরামতের কাজ করতে দেখা যায়নি।

 

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ এক্সচেঞ্জের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম (ফোনস্) জানান, এক্সচেঞ্জের পাওয়ার কার্ডে সমস্যা দেখা দেয়ায় (কার্ড ফল্ট করায়) মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সকল টেলিফোন বিকল হয়ে পড়ে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। মঙ্গলাবারও প্রকৌশলীরা (এক্সপার্টরা) বিষয়টি দেখে গেছেন আশা করা হচ্ছে আজকের মধ্যে সকল টেলিফোন সচল করা সম্ভব হবে।

 

(ঢাকাটাইমস/২৪জুন/প্রতিনিধি/ইইউ)

 

Categories
আইন শৃঙ্খলা এলাকার সমস্যা সামাজিক অবস্থা

সিসি টিভির আয়তায় আনা হবে পুড়ো সিদ্ধিরগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জ শিমরাইল মোড় এলাকার সকল পরিবহন সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ,ছিনতাইকারী ও অবৈধ দখলবাজসহ নৈরাজ্য সৃষ্টিকারী সকল অপরাধীদের মূহুর্তে চিহ্নিতকরন এবং থানায় পুলিশের দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও আগন্তুক সর্বসাধারনের গতিবিধি পর্যবেক্ষনের লক্ষ্যে থানাসহ মহাসড়কের গুরুত্ব পূর্ন স্থানে শক্তিশালী ইন্টারনেট প্রযুক্তি নির্ভর ক্লোজ সার্কিট আইপি ক্যামেরা স্থাপন করেছে জেলা পুলিশ প্রশাসন। এর মধ্যে মহাসড়কের শিমরাইল মোড় ডাচ্ বাংলা থেকে কাঁচপুর ব্রীজ এলাকা পর্যন্ত ৮টি এবং সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ৪টি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসির কক্ষে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা উদ্বোধন করেন,নারায়নগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার ড.খন্দকার মহিদ উদ্দিন।

0081-1728x800_c

এসময় ড.মহিদ বলেন, সিসি ক্যামেরার সাহায্যে থানায় ওসির কক্ষে বসেই শিমরাইল মোড় এলাকার অবৈধ দখলদার,চাঁদাবাজসহ বিভিন্ন অপরাধীদের দ্রুত সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে। প্রত্যেকটি এলাকার অপরাধ নিয়ন্ত্রনে পর্যায়ক্রমে সকল গুরুত্বপূর্ন স্থানে সিসি ক্যামেরা বসানো হবে। এসব ক্যামেরা গুলো সার্বক্ষনিক মনিটরিং করার মাধ্যমে আমাদের ফোর্স নিয়মিত মাঠে কাজ করবে। হঠাৎ কোন ক্যামেরায় গোলযোগ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে আমাদের টিম গিয়ে সেটি তদারকি করবে।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন,সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) মো:ফোরকান শিকদার,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো:জাকারিয়া,সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো:শরাফত উল্লাহ,ওসি (তদন্ত) মো:রফিকুল ইসলাম ও সেকেন্ড অফিসার এসআই মনসুর আলী আরিফ প্রমূখ।

 

রুদ্রবার্তা২৪

Categories
Aside অভিযোগ এলাকার সমস্যা সামাজিক অবস্থা

Grid failure interrupts power supply in Dhaka, Siddhirganj -New Age

Siddhirganj-Ulan grid failure on Tuesday evening interrupted power supply for over two hours in entire Siddhirganj area in Narayanganj and a large area of Dhaka city, officials said. People of Siddhirganj, Jatrabari, Shyampur, Rampura, Banasree, Khilgaon, Malibagh and Sher-e-Bangla Nagar among the areas of Dhaka city faced the sudden power outage, they said. The grid failure even put the Jatiya Sangsad Bhaban, Ganabhaban and Bangabhaban into dark for a few seconds, the officials said. The power outage affected the parliament session when the prime minister Sheikh Hasina was staying at her parliament office. Dhaka Power Distribution Company director Md Ramiz Uddin Sarker told New Age that the authorities concerned restored power supply to the Parliament Bhaban and other sensitive establishments in a shortest time through alternative supply lines. The engineers of the Power Grid Company of Bangladesh and the Dhaka Power Distribution Company restored the grid at about 9:30 pm, PGCB managing director Masum Al Beruni said. – See more